৫০ হাজার টন চাল আসবে মুম্বাই থেকে

মানব কল্যাণ

৫০ হাজার টন চাল আসবে মুম্বাই থেকে

ভারত থেকে এবার কেনা হচ্ছে ৫০ হাজার টন নন-বাসমতি চাল। তবে এই চাল আসবে ভারতের মুম্বাই থেকে। সরকারি ক্রয়–সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি আজ বুধবার এ–বিষয়ক একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে।

গত সপ্তাহে ভারতের বীরভূম থেকেও ৫০ হাজার টন নন-বাসমতি চাল আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন করেছিল ক্রয় কমিটি। বীরভূম থেকে অবশ্য কেজিতে ৯৯ পয়সা দাম কম পড়ছে মুম্বাইয়ের চালের।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সভাপতিত্বে গতকাল ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত ক্রয় কমিটির বৈঠকে প্রস্তাবটি অনুমোদিত হয়। অসুস্থতার ছুটিতে সিঙ্গাপুর থাকায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেননি।

এক সপ্তাহ আগেও ভারতের বীরভূম থেকে ৫০ হাজার টন চাল কেনার প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছিল। এবার আসছে মুম্বাই থেকে। মুম্বাইয়ের চালের দাম বীরভূমের চাল থেকে কেজিতে ৯৯ পয়সা কম পড়ছে।

বৈঠক শেষে অনলাইনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আবু সালেহ্ মোস্তফা কামাল সাংবাদিকদের জানান, চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য এ চাল কেনা হবে। প্রতি টন চালের দাম ৪০৪ দশমিক ৩৫ মার্কিন ডলার। মোট ৫০ হাজার টনের দাম ২ কোটি ২ লাখ ১৭ হাজার ৫০০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি টাকায় দাম পড়ে ১৭১ কোটি ৪৪ লাখ ৪৪ হাজার টাকা। বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রতি কেজি চালের দাম হয় ৩৪ দশমিক ২৮ টাকা।

ভারতের মুম্বাইয়ের এম এস রিকা গ্লোবাল ইম্প্যাকটস লিমিটেড থেকে এই চাল আমদানি করা হবে বলে জানান মোস্তফা কামাল।গত সপ্তাহে ভারতের বীরভূম থেকে ৫০ হাজার টন চাল আমদানির যে প্রস্তাব অনুমোদিত হয়, তাতে কেজিপ্রতি দর ছিল ৩৫ দশমিক ২৭ টাকা। বীরভূম থেকে চাল সরবরাহের কাজ পেয়েছিল এম এস পিকে লিমিটেড।

কাকে জানাব জন্মদিনের শুভেচ্ছা? ফাহিম সালেহর বাবা

ফেসবুকে মানব কল্যাণ

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *