নোয়াখালীর সুবর্ণচরে মহিলা কে কথিত ৪ টুকরো করে কেটে হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে মূল হোতা নিহতের ছেলে হুমায়ুন কবির

manobkollan
নিজস্ব প্রতিনিধি নোয়াখালী:
নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় নুর জাহান বেগম (৫৭) নামে এক নারীকে ৪ টুকরো করে কেটে হত্যার ঘটনায় নিহতের ছেলে হুমায়ূন কবিরকে (২৮) কে গ্রেপ্তার করে আদালতে চালান দিয়েছে চরজব্বর থানার পুলিশ।
ঘটনার পরদিন গত ৮ অক্টোবর নিহত নুরজাহানের ছেলে হুমায়ুন কবির কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে নেয় ওসি সাহেদ উদ্দিন। রাত সাড়ে ৮টার দিকে চরজব্বার থানা পুলিশ তাকে থানায় তলব করে থানায় নিয়ে আসে। হুমায়ূন কবির উপজেলার চরজব্বার ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মৃত আব্দুল বারেকের ছেলে।
চরজব্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাহেদ উদ্দিন নিহতের ছেলের থানায় ডেকে নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার প্রেক্ষিতে সন্দেহজনক হওয়ায় নিহত নারীর ছেলেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে।
উল্লেখ, ৭ অক্টোবর বুধবার বিকেল ৫টার দিকে পুলিশ উপজেলার চরজব্বার ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের উত্তর জাহাজমারা গ্রামের প্রভিডা ফিডে পিছনের একটি ধানক্ষেত থেকে একাধিক অভিযান চালিয়ে ওই নারীর ৫ টুকরো মরদেহ উদ্ধার করে।
নিহত নুর জাহান বেগম উপজেলার চরজব্বার ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মৃত আব্দুল বারেকের স্ত্রী। তিনি আট ছেলে ও এক মেয়ে সহ নয় সন্তানের জননী।
ওই নারীকে কেটে কেটে ৪ টুকরো করে হত্যা করা হয়েছে প্রাথমিক ধারনা হলেও ঐ মহিলার শরীরের ৫ টি টুকরো পাওয়া যায় । অবশেষে পুলিশ এই হত্যাকান্ডেরমুল রহস্য উদঘাটন করতে সক্ষম হয়। এই বিষয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন চট্টগ্রাম রেন্জের ডি আই জি আনোয়ার হোসেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মৃত নুরজাহানের ছেলে হুমায়ুন কবিরের স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে জানা যায় জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে নিহতের ছেলে হুমায়ুন কবির ও তার সঙ্গীয় খুনিরা এই নৃসংশ হত্যাকান্ড চালায়। এই বিষয়ে নিহতের ছেলে হুমায়ুন কবির সহ মোট ৭ জনকে আসামী করে চরজব্বর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে হুমায়ুন কবির সহ দুই জনকে আদালতের মাধ্যমে হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *