1. admin@manobkollan.com : admin :
  2. mkltdnews@gmail.com : Anamul Gazi : Anamul Gazi
  3. mkltd2020@gmail.com : Mehedi Hasan : Mehedi Hasan
  4. riff1431@gmail.com : Shariar R. Arif : Shariar R. Arif
পানি কমছে আত্রাই ও ছোট যমুনায় কমেনি দুর্ভোগ - মানব কল্যাণ
বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৭:০৫ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
ডিমলায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে বিএনপি’র মানববন্ধন অনুষ্ঠিত বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল’ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ‘জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় দিবস-২০২০’ উদযাপিত দর্শনা হিমেল আবা‌সিক হোটেলে দর্শনা থানা পু‌লি‌শের অ‌ভিযান যুবতীসহ বিজিবি সদস্য আটক ২ ডিমলায় ৩য় শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা গ্রেফতার ১ ডিমলায় শিক্ষক মিলন মেলা অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকায় ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৬৮০ ঘনমিটার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন অভারহেড ট্যাংক নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করেন মেয়র জিপু চৌধুরী ভ্যান চুরি হয়ে যাওয়ায় হতদরিদ্র বক্কারের মানবেতর জীবনযাপন মৌলভীবাজারে জেলা পরিষদের উপনির্বাচনে মিছবাহুর রহমান বেসরকারি ভাবে বিজয়ী হয়েছেন রাজাপুরে আইন অমান্য করে জেলেরা ধরছে মা ইলিশ ছবি তুলতে গিয়ে হামলার স্বীকার সাংবাদিকরা ভান্ডারিয়ায় গাঁজাসহ এক মাদক কারবারী আটক

পানি কমছে আত্রাই ও ছোট যমুনায় কমেনি দুর্ভোগ

মেহেদী হাসান
  • Update Time : শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০

নওগাঁ ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ হাবিবুর রহমান (হাবিব)

নওগাঁ শহর রক্ষা বাঁধের আউটলেট দিয়ে পানি ঢুকে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে শহরের বিভিন্ন এলাকায়।
আজ শুক্রবারও নওগাঁর আত্রাই ও ছোট যমুনা নদীর পানি কমা অব্যাহত রয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকেই পানি কমতে শুরু করেছিল। পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় নওগাঁর মান্দা উপজেলার জোতবাজার পয়েন্টে পানির উচ্চতা ৬৩ সেন্টিমিটার কমেছে এবং নওগাঁ শহরের লিটন ব্রিজ পয়েন্টে ৪ সেন্টিমিটার কমেছে।

আত্রাই নদের পানির উচ্চতা কমে আজ দুপুর ১২টায় মান্দার জোতবাজার পয়েন্টে বিপৎসীমার ১২ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। তবে নওগাঁ শহরের লিটন ব্রিজ পয়েন্টে ছোট যমুনার পানি এখনো বিপৎসীমার ১৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

নদীর পানির উচ্চতা কমতে শুরু করলেও বাঁধভাঙা পানিতে জেলার নিম্নাঞ্চলের যেসব এলাকা প্লাবিত হয়েছে, সেখানে এখনো ভোগান্তির মধ্যে রয়েছে মানুষ। এখনো পানিবন্দী হয়ে রয়েছে মান্দা ও আত্রাই উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ। বাঁধ, সড়ক, উঁচু স্থানসহ আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নেওয়া মানুষেরা মানবেতর জীবনযাপন করছে। সেখানে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানির সংকট ও স্যানিটেশনের সমস্যা প্রকট। এর পাশাপাশি গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে পড়েছে বন্যাদুর্গত মানুষ।

এদিকে শহরের সুপারিপট্টি, জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) কার্যালয়, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) নওগাঁ ব্যাটালিয়নের আবাসিক এলাকা ও পার-নওগাঁ এলাকা জলাবদ্ধ হয়ে রয়েছে। ছোট যমুনা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে নওগাঁ শহর রক্ষা বাঁধের আউটলেট (শহরের পানি বের করে দেওয়ার নালা) দিয়ে পানি ঢুকে এসব এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করেছে।

এক সপ্তাহ ধরে পানিবন্দী হয়ে রয়েছেন নওগাঁর আত্রাই ও মান্দা উপজেলার নিম্নাঞ্চলের মানুষ।
আত্রাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবাদুল বলেন, নদীর পানি কমে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে উপজেলার যাত্রামূল ও আহসানগঞ্জ এলাকায় আত্রাই নদীর বাঁধের ভাঙন দিয়ে পানি ঢোকার প্রবাহ কিছুটা কমেছে। নিম্নাঞ্চলে চলনবিলের দিকে পানি নেমে যাওয়ায় আজ সকাল থেকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পানি কমতে শুরু করেছে। তবে এখনো ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট ও হাটবাজার পানির নিচে রয়েছে।

আত্রাই উপজেলার আহসানগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আক্কাস আলী প্রামাণিক বলেন, এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে মানুষ পানিবন্দী হয়ে থাকলেও দুর্গত মানুষ পর্যাপ্ত ত্রাণ সহায়তা পাচ্ছে না। সরকারি বরাদ্দ থেকে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে কিছু ত্রাণ পেলেও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো ত্রাণ সহায়তা দিতে পারছে না। কারণ, নওগাঁ-৬ (রানীনগর ও আত্রাই) আসনের উপনির্বাচনের কারণে প্রশাসন থেকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কিংবা ব্যক্তিগতভাবে ত্রাণ সহায়তা বিতরণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। সরকারিভাবে ত্রাণের যে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে, সেটা পর্যাপ্ত নয়।

নওগাঁ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান খান জানান, আত্রাই নদের পানি কমে জেলার সব পয়েন্টেই এখন বিপৎসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ছোট যমুনার পানিও কমেছে। তবে এখনো বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উজানের পানির প্রবাহ কমে যাওয়ায় আবার বৃষ্টিপাত না হলে আগামী চার-পাঁচ দিনে নিম্নাঞ্চলের অনেক এলাকা থেকে পানি নেমে যাবে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা কামরুল আহসান বলেন, চলতি বন্যায় জেলার মান্দা, আত্রাই, রানীনগর ও সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের প্রায় ১৪ হাজার পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। ইতিমধ্যে বন্যাদুর্গত মানুষের মাঝে ১১০ মেট্রিক টন চাল ও ৩ হাজার ৯৪৫ ব্যাগ শুকনা খাবার বিতরণ করা হয়েছে। ত্রাণ সহায়তার জন্য আরও ২০০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দের জন্য চাহিদা পাঠানো হয়েছে।

নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক শামসুল ওয়াদুদ বলেন, বন্যায় ৫ হাজার ৫০৭ হেক্টর জমির ফসল তলিয়ে গেছে। এর মধ্যে রোপা আমন ৫ হাজার ৪১১ হেক্টর ও ৯৬ হেক্টর জমির সবজি খেত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বার্তা প্রেরকঃ
মো: হাবিবুর রহমান হাবিব)
নওগাঁ (মান্দা)
মোবাইলঃ ০১৭২৬৫৫৯৯২৩
তারিখঃ ২/১০/২০২০ ইং

সোসাল মিডিয়ায় সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

বিভাগ

মানব কল্যাণ ডট কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Terms And Conditions |Privacy Policy  | About Us | Contact  Us
Development Nillhost