1. admin@manobkollan.com : admin :
  2. mkltdnews@gmail.com : Anamul Gazi : Anamul Gazi
  3. mkltd2020@gmail.com : Mehedi Hasan : Mehedi Hasan
  4. riff1431@gmail.com : Shariar R. Arif : Shariar R. Arif
নওগাঁতে ভেজাল কীটনাশকে কপাল পুড়ছে কৃষকের - মানব কল্যাণ
মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০২:১৮ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
জাতীয় পার্টির শাসনামলে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন ছিলোনা- গোলাম মোহাম্মদ কাদের বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ কোটি ২ লাখ ৬৪ হাজার ছাড়িয়েছে। আর এ মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১১ লাখ ১৮ হাজার ডিমলায় হুইলচেয়ার পেলেন মোফাজ্জল হোসেন চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তবর্তী চাকুলিয়া গ্রামের বিলের মধ্যে থেকে ২ কেজি ৪০০ গ্রাম বার উদ্ধার করেন বিজিবি ভাণ্ডারিয়ায় ইজিবাইকের চাপায় প্রাণ গেল এক পথচারীর আলমডাঙ্গা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় মাঠে ডিমলায় দুর্গাপূজা উপলক্ষে পুলিশের মতবিনিময় সভা ডিমলায় দুর্গাপূজা উপলক্ষে পুলিশের মতবিনিময় সভা জীবনযুদ্ধে লড়ছেন ২৬ ইঞ্চি দৈর্ঘ্যরে প্রতিবন্ধী ফরিদ ডিমলায় হাঙ্গার প্রজেক্টের সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ

নওগাঁতে ভেজাল কীটনাশকে কপাল পুড়ছে কৃষকের

মেহেদী হাসান
  • Update Time : রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব নওগাঁ ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর রানীনগরে ফসলে ভেজাল কীটনাশক ব্যবহার করে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন কৃষকরা। ধানের পোকা দমনে কৃষক না বুঝে দোকান থেকে কিনে ফসলে ব্যবহার করছেন। এতে উপকারের পরিবর্তে উল্টো ক্ষতি হচ্ছে। একদিকে যেমন ফসলের ক্ষতি হচ্ছে অপরদিকে আর্থিক ক্ষতিরও মুখে পড়ছেন কৃষকরা।

জানা গেছে, ইনতেফা কোম্পানি ‘বাতির’ নামক কীটনাশক কোম্পানির নির্ধারিত দোকানগুলোর মাধ্যমে বাজারে বিক্রি করে থাকে। রানীনগর উপজেলায় গত দুইমাস থেকে ‘বাতির’ নামক কীটনাশক বাজারে নেই। কোম্পানির নির্ধারিত দোকানগুলোতে এ কীটনাশক না থাকলেও বাইরের কিছু দোকানে পাওয়া যাচ্ছে। কৃষকরা ধানের পোকা দমনে এ কীটনাশক স্প্রে করেন। কিন্তু কিছুতেই পোকা দমন সম্ভব হচ্ছে না। উল্টো কোম্পানির বিরুদ্ধে তাদের বিভিন্ন অভিযোগ। কোম্পানির এ ‘বাতির’ কীটনাশক যেতেহু দুইমাস থেকে সরবরাহ নেই সেহেতু বিষয়টি নিয়ে কোম্পানির জেলা প্রতিনিধিরা মাঠে নামেন। পরে দেখেন বাজারে যে ‘বাতির’ নামক কীটনাশক আছে সেটি তাদের না। হুবহু তাদের কীটনাশকের মোড়ক নকল করে বাজারে বিভিন্ন কীটনাশকের দোকানে বিক্রি করা হচ্ছে। আর কৃষকরা না বুঝে ওই নকল কীটনাশক কিনে প্রতারিত হচ্ছেন। নকল কীটনাশক উদ্ধারে দ্রুত প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন কৃষকরা।

কোম্পানির পক্ষ থেকে উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করা হয়। গত ১৫ সেপ্টেম্বর উপজেলার আবাদপুকুর বাজারে উপজেলা প্রশাসন অভিযান পরিচালনা করে। এসময় নকল ‘বাতির’ কীটনাশক বিক্রি করার দায়ে কীটনাশক ব্যবসায়ী লুৎফর রহমানকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের কৃষক মুনছুর আলী বলেন, প্রায় আড়াইমাস আগে বাতির কীটনাশক ১০০ গ্রাম ওজনের কিনেছিলাম। গত ১৫-২০ দিন আগে আবারও কেনার জন্য আবাদপুকুর বাজারে গিয়ে অনেক খুঁজে একটা দোকানে পেয়েছি। ১০০ গ্রাম ওজনের দাম ২৮০ টাকা। এছাড়া প্যাকেটের ভেতরে দানা ভাব ছিল। সন্দেহ হওয়ায় সেটি আর নিইনি। যারা ওই দোকান থেকে বাতির কীটনাশক কিনেছে তারা প্রতারিত হয়েছে।

আবাদপুকুর বাজারের কীটনাশক ব্যবসায়ী লুৎফর রহমান বলেন, ‘বাতির’ কীটনাশক আসল না নকল তা জানি না। তবে কোম্পানির লোক পরিচয় দিয়ে দোকানে দিয়েছিল। পরে কোম্পানির আসল লোকজন প্রশাসনের সঙ্গে এসে অভিযান চালিয়ে নকল বলে জব্দ করে। তবে যারা ওই কীটনাশক সরবরাহ করে আসছিল তারা আর আসে না।

ইনতেফা কোম্পানির এরিয়া ম্যানেজার আবু সাঈদ বলেন, গত দুই মাস থেকে কোম্পানির ওই কীটনাশক সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। কিন্তু তারপরও কিছু কিছু কীটনাশক ব্যবসায়ী নকল ‘বাতির’ কীটনাশক বিক্রি করে আসছিলেন। কৃষকরা ওই কীটনাশক ব্যবহার করে অভিযোগ করেন। এরপর আমরা বাজারে গিয়ে কীটনাশক ব্যবসায়ীদের কাছে ‘বাতির’ কীটনাশকটি দেখি। সেটা নকল বলে প্রতিয়মান হয়। আমাদের কোম্পানির মনোগ্রামসহ সবকিছু নকল করা হয়েছে। কোম্পানির লোক পরিচয় দিয়ে যিনি কীটনাশক সরবরাহ করতেন তাদের একজনের নামও আমরা পেয়েছি। বিষয়টি কোম্পানিকে অবগত করা হয়েছে।

রানীনগর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে ভেজাল কীটনাশকের সত্যতা পাওয়া যায়। তবে কীটনাশক ব্যবসায়ীরা কোথা থেকে কিভাবে সেগুলো কিনেছেন তা বলতে চান না। ভেজাল কীটনাশক বিক্রি বন্ধ এবং কৃষকদের বাঁচাতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সোসাল মিডিয়ায় সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

বিভাগ

মানব কল্যাণ ডট কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Terms And Conditions |Privacy Policy  | About Us | Contact  Us
Development Nillhost