1. admin@manobkollan.com : admin :
  2. mkltdnews@gmail.com : Anamul Gazi : Anamul Gazi
  3. mkltd2020@gmail.com : Mehedi Hasan : Mehedi Hasan
  4. riff1431@gmail.com : Shariar R. Arif : Shariar R. Arif
নোয়াখালীতে চরম বিদ্যুৎ বিভ্রাটে জনজীবনে দূর্ভোগ তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ জেলাবাসীর - মানব কল্যাণ
সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৯:২৯ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
জীবনযুদ্ধে লড়ছেন ২৬ ইঞ্চি দৈর্ঘ্যরে প্রতিবন্ধী ফরিদ ডিমলায় হাঙ্গার প্রজেক্টের সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ নওগাঁয় উপনির্বাচনে ‘ভোটচুরির’ প্রতিবাদে বিএনপির নিরুত্তাপ হরতাল নড়াইলে কলেজছাত্রী অপহরণের ঘটনায় মামলা নওগাঁয় খাদ্যমন্ত্রীর রোপনকৃত সারিবদ্ধ তাল গাছ এখন বিনোদন কেন্দ্র  আরিফ এর জন্মদিন শ্রীবরদীতে পেট্রোল দিয়ে ‘মা’ কে পুড়িয়ে হত্যা ঘাতক ছেলে আটক সারাদেশে ইন্টারনেট ও ডিস বন্ধের কর্মসূচি স্থগিত নীলফামারীর ডিমলায় প্রাইমারি বিদ্যালয়ে ক্ষুদ্র মেরামত স্লিপ ও প্রাক-প্রাথমিকের বরাদ্দকৃত টাকা আত্নসাৎ ও অনিয়ম অভিযোগ নোয়াখালীতে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ

নোয়াখালীতে চরম বিদ্যুৎ বিভ্রাটে জনজীবনে দূর্ভোগ তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ জেলাবাসীর

মেহেদী হাসান
  • Update Time : বুধবার, ২৯ জুলাই, ২০২০
মানব কল্যাণ
মানব কল্যাণ

মোঃ মহি উদ্দিন স্টাফ রিপোর্টার নোয়াখালী:

নোয়াখালী জেলায় বেশ কয়েক মাস ধরেই অস্বাভাবিক বিদ্যুৎ বিভ্রাট চলমান, তবে এই সমস্যা অতিমাত্রায় বেড়ে যাওয়ায় বর্তমানে জনদূর্ভোগ পৌছেছে চরম পর্যায়ে। সামান্য বাতাস কিংবা ঝড়ো হাওয়া হলে বিদ্যুৎ থাকার কথা চিন্তাই করা যায়না এই জেলা শহরে। কিন্তু বর্তমানে তা রৌদ্রোজ্জ্বল দিন কিংবা সাধারণ সময়েও ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনাকালীন সময়েই গ্রাহক দের ভৌতিক বিদ্যুৎ বিল দিয়ে ইতোমধ্যেই সমালোচনার মুখে পড়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। নোয়াখালীতে বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকায় অনেক শিক্ষার্থী মেস কিংবা বাসা ভাড়ায় বসবাস করেন এখানে, বিভিন্ন চাকুরীজীবিরাও চাকরীর সুবাদে বসবাস করে থাকেন স্থানীয় দের পাশাপাশি ।

সম্প্রতি করোনাকালীন সময়ে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠান গুলো বন্ধ থাকার সুবাদে সবাই নিজ বাড়ীতে ফিরে গেছেন, তবে ফিরে এসেই পেয়েছেন ভৌতিক বিল। যেখানে কেউ বাড়ীতেই ছিলেন না কিংবা কোনো ফ্রিজ টিভিও নেই এমন বাসায়ও বিল এসেছে ২ মাসে ৩৬০০ টাকা যা অকল্পনীয়।

করোনাকালীন সময়ে সরকার এবং সকল পর্যায় থেকে বলা হচ্ছে, “ঘরে থাকুন এবং নিরাপদ থাকুন”। ঘরে থেকেও যদি বিদ্যুতের এমন চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় সেক্ষেত্রে জনগণ সবসময় ঘরমুখো থাকবেন না বলে ধারনা করা যায়।

যেখানে বিভিন্ন কল-কারখানা এবং অনেক প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে, বিদ্যুতের চাহিদা ও স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে তুলনামূলক কিছুটা কম মনে করা হয় সেখানে এই পরিমাণ বিদ্যুৎ বিভ্রাট অকল্পনীয়। প্রতি ঘন্টায় ৩-৫ বার ও বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ঘটনা ঘটছে প্রতিদিনই। এমনকি প্রতিদিনই কোথাও কোথাও ঘন্টার পর ঘন্টা টানা বিদ্যুৎহীন থাকছেন এই জেলার মানুষ। ২৮ জুলাই মঙ্গলবার আনুমানিক দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত প্রায় ৩ ঘন্টা বিদ্যুৎ ছিলো না জেলার প্রাণকেন্দ্র মাইজদীর কয়েকটি জায়গায়।

কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়-

তারা বিদ্যুৎ না থাকায় দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য পানি তুলতে পারেন না, শিক্ষার্থী রা সমস্যায় পড়ছেন অনলাইনে তাদের শিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে, যেসকল অফিস কিংবা প্রতিষ্ঠানে জেনারেটর বা আইপিএস সুবিধা নেই তারাও প্রচুর সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন, দোকানপাট কিংবা বিভিন্ন যায়গায় ও চলছে চরম দুর্ভোগ।

জনগণ এই চরম দুর্ভোগের ব্যাপারে তীব্র ক্ষোভ জানিয়েছেন এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট দ্রুত এই সমস্যার প্রতিকার চেয়েছেন। তারা চান বিভিন্ন খাতের মতো এই বিষয়টি ও দ্রুত খতিয়ে দেখা হোক।

সোসাল মিডিয়ায় সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

বিভাগ

মানব কল্যাণ ডট কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Terms And Conditions |Privacy Policy  | About Us | Contact  Us
Development Nillhost