মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত জবি ছাত্রের মুক্তি মেলেনি ১৫ দিনেও!

জবি প্রতিনিধিঃ
শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার ভোলাই মুন্সিকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে রিয়াজ মাদবর (১৭) নামে এক কিশোর নিহতের ঘটনায় জাজিরা থানা পুলিশ বিনা অপরাধে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মুনির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে এবং মামলা দিয়ে কোর্টে চালান করে দেয়।

মুনিরের বোন কুহিনুর জানান, মুনির এবং তার পরিবারের কেউ ওই সংঘর্ষে ছিল নাহ, এমনকি তারা কোনো পক্ষেরই সমর্থক ছিলো নাহ। কিন্তু পরের দিন মুনিরের সাথে কথা বলার কথা বলে ঘর থেকে বের করে নিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মুনিরের ভাবি বলেন, এ ঘটনা থেকে মুনিরকে ছাড়ানোর কথা বলে গ্রামের চেয়ারম্যান ইসমাইল মোল্লা প্রায় ৩ লক্ষ টাকা নিয়েছে তাদের কাছ থেকে। যদিও টাকা নেয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান অস্বীকার করে বলেন, আমি কেনো টাকা নিবো, আমি কোনো টাকা নেইনি।

এ ঘটনার প্রায় ১৫ দিন অতিবাহিত হয়ে যাওয়ার পরও মুনিরের জামিনের ব্যাপারে কোনো ধরনের সুস্পষ্ট বক্তব্য পাওয়া যায়নি কোনো পক্ষ থেকে। এ ব্যাপারে শরীয়তপুর জেলা পুলিশের এসপি এস. এম আশরাফুজ্জামান এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, খুব শীগ্রই সে ছাড়া পাবে। এর বাইরে আর কিছু বলা যাবে না।

জাজিরা জেলার ওসি সাহাবুদ্দিন কে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, মামলার মূল আসামী গ্রেপ্তার হয়েছে, আর মুনিরের জামিন আগামী সপ্তাহে হতে পারে,জামিন হলেই তাকে এ মামলা থেকে তাকে প্রত্যাহার করে দেয়া হবে যেহেতু ওর একটা ভবিষ্যত আছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড.মোস্তফা কামালকে জামিনের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, কোর্টে চালান হওয়ার পরও আমি ওসিকে বলেছি একটু ব্যাপারটা দেখবেন, তারপরও ছেলেটা কেনো ছাড়া পাচ্ছে না বুজতে পারছি না।

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *