ঝালকাঠিতে পিসিআর ল্যাবের দাবীতে মানববন্ধন করে ১১ টি সংগঠন – মানব কল্যাণ

আবু নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

কভিড ১৯ সনাক্তকরনের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ‘পিসিআর ল্যাব’ স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ঝালকাঠির ১১টি সংগঠন। বুধবার সকাল ১১ টায় ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সামনে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় প্রেস ক্লাব আয়োজিত মানববন্ধনে অংশ নিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন), রক্ত কণিকা ফাউন্ডেশন,
কমিউনিস্ট পার্টি, ছাত্র ইউনিয়ন, বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজ, দুরন্ত ফাউন্ডেশন, ইয়ুথ অ্যাকশন সোসাইটি, মানব কল্যাণ সোসাইটি, কালের কণ্ঠ শুভসংঘ এবং প্রথম আলো বন্ধুসভা।

এছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এ দাবির সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেছে। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সচিবের বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন প্রেস ক্লাবের সভাপতি চিত্তরঞ্জন দত্ত, সাধারণ সম্পাদক মো. আক্কাস সিকদার, সদর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মঈন তালুকদার, সুজন সদর উপজেলা সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত দাস হরি, প্রেস ক্লাবের সহসাধারণ সম্পাদক কে এম সবুজ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক অলোক সাহা, প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, রক্ত কনিকার এডমিন মুস্তাফিজুর রহমান প্রীতম তালুকদার, প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি শাকিল হাওলাদার রনি, কালের কণ্ঠ শুভসংঘের সাধারণ সম্পাদক ও দুরন্ত ফাউন্ডেশনের সভাপতি তাসিন মৃধা অনিক, ৭১’র চেতনা সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা মাহফুজা মিষ্টি, মানব কল্যাণ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা উজ্জল রহমান ও ইয়ুথ এ্যাকশন সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক মাহিদুল ইসলাম রাব্বি প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ঝালকাঠিতে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩’শ। এ জেলায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের, উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে ৩৪ জন। এ জেলার মানুষের নমুনা সংগ্রহের পরে জেলা সদর থেকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে বিলম্বে রিপোর্ট আসার কারনে ঝুঁঁকিতে রয়েছে ঝালকাঠিবাসী। অনেক রোগী রিপোর্ট পাওয়ার আগেই মৃত্যুবরণ করেছে। তাই অতিদ্রুত এ জেলায় ‘পিসিআর ল্যাব’ স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন বক্তারা।

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *