1. admin@manobkollan.com : admin :
  2. mkltdnews@gmail.com : Anamul Gazi : Anamul Gazi
  3. mkltd2020@gmail.com : Mehedi Hasan : Mehedi Hasan
  4. riff1431@gmail.com : Shariar R. Arif : Shariar R. Arif
কমেছে আদা–রসুনসহ বিভিন্ন মসলার দাম -manob Kollan - মানব কল্যাণ
বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল’ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ‘জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় দিবস-২০২০’ উদযাপিত দর্শনা হিমেল আবা‌সিক হোটেলে দর্শনা থানা পু‌লি‌শের অ‌ভিযান যুবতীসহ বিজিবি সদস্য আটক ২ ডিমলায় ৩য় শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা গ্রেফতার ১ ডিমলায় শিক্ষক মিলন মেলা অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকায় ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৬৮০ ঘনমিটার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন অভারহেড ট্যাংক নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করেন মেয়র জিপু চৌধুরী ভ্যান চুরি হয়ে যাওয়ায় হতদরিদ্র বক্কারের মানবেতর জীবনযাপন মৌলভীবাজারে জেলা পরিষদের উপনির্বাচনে মিছবাহুর রহমান বেসরকারি ভাবে বিজয়ী হয়েছেন রাজাপুরে আইন অমান্য করে জেলেরা ধরছে মা ইলিশ ছবি তুলতে গিয়ে হামলার স্বীকার সাংবাদিকরা ভান্ডারিয়ায় গাঁজাসহ এক মাদক কারবারী আটক নওগাঁর মান্দা উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলছে

কমেছে আদা–রসুনসহ বিভিন্ন মসলার দাম -manob Kollan

মেহেদী হাসান
  • Update Time : রবিবার, ৫ জুলাই, ২০২০
Manobkollan
Manobkollan

রাজধানীর বাজারে কমেছে বিভিন্ন মসলার দাম। আজ রোববার ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের তথ্য অনুযায়ী, রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে শুকনো মরিচ, ধনে ও তেজপাতার দাম কমেছে। গত শুক্রবার থেকেই আদা, রসুন, হলুদ, জিরার দাম কমেছে। এ ছাড়া কমেছে ব্রয়লার মুরগি ও ছোলার দাম।

ব্রয়লার মুরগির দাম গত সপ্তাহের তুলনায় কেজিতে কমেছে ১০ টাকা। আজ বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা দরে। গত সপ্তাহে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগির দাম ছিল ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা।

মসলার মধ্যে মানভেদে কেজিতে ২০ থেকে ৪০ টাকা কমেছে শুকনো মরিচের দাম। আজ প্রতি কেজি শুকনো মরিচ বিক্রি হচ্ছে ২১০ থেকে ২৮৯ টাকা কেজি দরে। গত সপ্তাহে প্রতি কেজি দেশি শুকনো মরিচের দাম ছিল ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা। আমদানি করা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ২৬০ থেকে ৩২০ টাকা কেজি দরে। গত সপ্তাহে দাম ছিল ৩০০ থেকে ৩২০ টাকা দরে। তেজপাতার দাম ১০ থেকে ২০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১৩০ টাকা দরে। গত সপ্তাহে এই মসলার দাম ছিল ১২০ থেকে ১৪০ টাকা। সপ্তাহের ব্যবধানে ধনের দাম কমেছে ২০ টাকা। বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১৫০ টাকা দরে।

গত শুক্রবার থেকে রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে আমদানি করা প্রতি কেজি আদা বিক্রি হচ্ছে ১৩০ থেকে ১৫০ টাকায়। আমদানি করা রসুন বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৯০ টাকায়। হলুদ বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ২০০ টাকায়। জিরা দাম কমেছে কেজিতে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, বিক্রি হচ্ছে ৩১০ থেকে ৩৫০ টাকায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শ্যামবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সদস্য মোহাম্মদ শহীদ বলেন, ক্রেতা না থাকার কারণে দাম কমে যাচ্ছে। পাইকারি বাজারেই দাম অনেক কম। তাই খুচরা বাজারেও কমেছে। আদা–রসুনের মতো পণ্য ক্রেতা না থাকলে বেশি দিন রাখা যায় না। তাই কম দামেই ছেড়ে দিতে হচ্ছে। অন্য সময় কোরবানির আগে ব্যাপক চাহিদা থাকে। এবার তেমন চাহিদা দেখা যাচ্ছে না।

সোসাল মিডিয়ায় সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

বিভাগ

মানব কল্যাণ ডট কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Terms And Conditions |Privacy Policy  | About Us | Contact  Us
Development Nillhost