করোনা উপসর্গ নিয়ে মারাযাওয়া নারীর দাফন করলো না ইসলামিক ফাউন্ডেশন – মানব কল্যাণ

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনার উপসর্গ নিয়ে আইসোলশনে এক নারী মৃত্যু কবর দেওয়া নিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে হয়েছে। কবর দেওয়া খরচ কে দেবেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।ইসলামি ফাউন্ডেশনের সেচ্ছাসেবী টিমের সদস্যরা কবর দিতে রাজি না হওয়ায় এ ঘটনা ঘটছে। জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে কবর দেওয়ার জন্য ইসলামি ফাউন্ডেশন কর্মকর্তাকে বলার পরও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এ ঘটনা নিয়ে ইসলামি ফাউন্ডেশন কর্মকর্তাদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
ইসলামি ফাউন্ডেশনের সদর উপজেলা সুপার ভাইজার সামছুর রহমান জানান, ইসলামী ফাউন্ডেশনের সেচ্ছাসেবী টিমের সদস্যরা কোন টাকা পয়সা পাচ্ছে না।কবর দেওয়ার দেওয়ার জন্য খরচ আছে।সেটি কে দেবেন।জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কবর দেওয়ার জন্য বলা হয়।কিন্তু সেচ্ছাসেবী টিমের সদস্যরা কবর দিতে না গেলে কি করেবেন।
ইসলামি ফাউন্ডেশনের ডিডি রফিকুল ইসলাম জানান, তিনি জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে নির্দেশনা পাওয়ার পর সদর উপজেলা সুপার ভাইজারকে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলা হয়।কিন্তু তিনি কেন করেননি এটা তার জানানেই।বিষয়টি তিনি খোঁজ খবর নিচেছন।প্রসঙ্গত বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে
করোনা উপসর্গ নিয়ে আতিরন বিবি (৪৩) মারা যান। তিনি সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের তালতলা গ্রামের শাজাহান আলীর স্ত্রী ও বিনেরপোতা গ্রামের রহমত আলীর মেয়ে।
মৃত্যু পর কবর দেওয়ার জন্যে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে ইসলামী ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাকে বলা হয়।কিন্তু ইসলামি ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে কবর দেন।

Author: Anamul Gazi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *