মানিকগঞ্জের-সিংগাইরে সরকারি আদেশ অমান্য করায় পাঁচ শিক্ষককে জেল-জরিমানা

(মানিকগঞ্জ): মানিকগঞ্জের সিংগাইরে গতকাল (১৮-ই মার্চ) সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করে কোচিং সেন্টারে প্রাইভেট পড়ানোর অপরাধে দুটি কোচিং সেন্টার থেকে মোট চারজন শিক্ষককে সাত দিনের জেল এবং এক শিক্ষিকাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত শিক্ষকরা হলেন, আল-মামুন, হাফিজুর রহমান, মনিরুল ইসলাম, খায়রুল ইসলাম ও শিউলি আক্তার। বুধবার (১৮ মার্চ) দুপুরে তাদের এ দণ্ডাদেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুনা লায়লা।
উল্লেখ্য যে দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সরকার আগামী ৩১ মার্চ ২০২০ পর্যন্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে।
সরকারি এ আদেশ অমান্য করে কোচিং সেন্টার গুলোতে ছাত্র- ছাত্রীদের প্রাইভেট পড়ানো হচ্ছে -এমন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহি অফিসার রুনা লায়লার নেতৃত্বে একটি টিম এ সকল কোচিং সেন্টারে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের আওতায় তাদের এ দণ্ডাদেশ দেয়া হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুনা লায়লা বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশনা জারি করেছে সরকার। সরকারি বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে দুটি কোচিং সেন্টারে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করা হচ্ছিল। খবর পেয়ে আটকের পর চার শিক্ষককে ১৯৬০ সালের দণ্ডবিধি ১৮৮ ধারায় সাতদিনের কারাদণ্ডাদেশ ও নারী শিক্ষককে ২৬৯ ধারায় বিশ হাজার টাকা জরিমনা করা হয়।

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *