মনিরামপুরে সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

মনিরামপুরে সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় দৈনিক প্রথম আলোর জ্যৈষ্ঠ প্রতিবেদক (সাংবাদিক) রোজিনা ইসলামকে শারীরিক ভাবে নির্যাতনকারী স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেসা বেগম এবং স্বাস্থ্য খাতে লুটপাটকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ, রোজিনার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং নিঃশর্তে মুক্তির দাবিতে মনিরামপুরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার বিকেলে যশোর-সাতক্ষীরা সড়কের মনিরামপুর পৌরশহরের প্রেসক্লাব ভবনের সামনে মনিরামপুর প্রেসক্লাবের উদ্যোগে এই কর্মসূচী পালন করা হয়। প্রেসক্লাবের সভাপতি ফারুক আহম্মেদ লিটনের সভাপতিত্বে ও সম্পাদক মোতাহার হোসেন ও সিনিয়র সাংবাদিক বাবুল আকতারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন মণিরামপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সহযোগী অধ্যাপক আব্বাস উদ্দীন, সহসভাপতি জিএম ফারুক আলম, প্রভাষক নূরুল হক, সাবেক সহসভাপতি মনিরুজ্জামান মনির, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম সিদ্দীক, দপ্তর সম্পাদক অশোক বিশ্বাস, নির্বাহী সদস্য হোসাইন নজরুল হক, গীতারানী কুন্ডু, সাধারণ সদস্য সঞ্জয় দে, জয়নাল আবেদিনসহ প্রমুখ। এ সময়ে মণিরামপুর প্রেসক্লাবের নির্বাহী ও সাধারণ পরিষদের সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তরা বলেন, স্বাস্থ্য খাতে শতশত কোটি টাকার অনিয়ম ধারাবাহিকভাবে তুলে ধরে ধারাবাহিকভাবে অনেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন দৈনিক প্রথম আলোর জ্যৈষ্ঠ প্রতিবেদক (সাংবাদিক) রোজিনা ইসলাম। যে কারণে স্বাস্থ্য বিভাগের অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেসা বেগম ও দোসররা মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে তাকে হেনস্থ্যসহ ষড়যন্ত্রমুলক মামলায় ফাঁসিয়েছেন। মিথ্যা মামলায় তাকে জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। সেই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নি:শর্তে তাকে মুক্তি দেওয়া ও এই নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

বক্তরা আরো অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে শতশত কোটি টাকা লুটপাটের সাথে স্বাস্থ্য বিভাগের প্রভাবশালী মহল জড়িত। সরকার কোটি কোটি টাকা স্বাস্থ্য বিভাগে দিলেও লুটপাটের ফলে দেশে আধুনিক স্বাস্থ্য সেবা গড়ে তোলা সম্ভব হয়নি। দ্রুত স্বাস্থ্য খাতে লুটপাটকারিদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবির পাশাপাশি সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধের দাবি জানানো হয়েছে।

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *