দর্শনা দিয়ে ভারত থেকে দেশে ফিরলেন ১১ বাংলাদেশি

চুয়াডাঙ্গা জেলা দর্শনা দিয়ে ভারত থেকে দেশে ফিরলেন ১১ বাংলাদেশি

অবশেষে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলা দর্শনা চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছেন ভারতে আটকে পড়া ১১ জন বাংলাদেশি নাগরিক। আজ সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দর্শনা চেকপোস্টে পৌঁছান ১১ জন বাংলাদেশি। ভারতফেরত ১১ জনের মধ্যে তিনজন নারী ও আটজন পুরুষ।

রবিবার ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের দেশে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু কলকাতাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের ছাড়পত্র (এনওসি)-সংক্রান্ত জটিলতায় গতকাল তারা দেশে ফিরতে পারেননি।
এদিকে, সন্ধ্যায় দর্শনা চেকপোস্টে পৌঁছলে তাদের হেলথ স্ক্রিনিং ও করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়। দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক

ডা. অমিত কুমার বিশ্বাসের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি মেডিক্যাল টিম তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন। তাদের কেউই করোনাভাইরাস শনাক্ত হননি। সেখান থেকে তাদের নির্ধারিত পরিবহনযোগে (মাইক্রোবাস) চুয়াডাঙ্গা কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) নেওয়া হয়েছে। সেখানে তারা ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।

দর্শনা ইমিগ্রেশন সূত্র জানিয়েছে, ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা সে দেশের দূতাবাস থেকে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) না পাওয়ায় গতকাল দেশে প্রবেশ করতে পারেনি। সোমবার সকালে থেকে সেখানে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) নিতে ভিড় জমান বাংলাদেশিরা। চুয়াডাঙ্গার দর্শনা চেকপোস্ট দিয়ে এমন প্রায় ৩ শতাধিক যাত্রীদের দেশে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। রবিবার থেকে তাদের দেশে প্রবেশের জন্য সবধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়।

দর্শনা জয়নগর চেকপোস্টের ইমিগ্রেশন ইনচার্জ এসআই আব্দুল আলিম জানান, ভারত থেকে দেশে আসা বাংলাদেশিদের আগমন উপলক্ষে সবধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে দর্শনা ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। ভারতের গেদের চেকপোস্টের ইনচার্জ সনজিদ কুমার জানিয়েছেন, বিকেলে ১১ জন বাংলাদেশের পাসপোর্টধারী যাত্রী ভারতের গেদে চেকপোস্টে পৌঁছান। দূতাবাসের ছাড়পত্র থাকায় ইমিগ্রেশনের সকল প্রক্রিয়া শেষে তাদের বাংলাদেশে পাঠানো হয়েছে। সন্ধ্যায় তারা দর্শনা চেকপোস্টে এসে পৌঁছান।

করোনা নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধসংক্রান্ত উপকমিটির আহ্বায়ক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনিরা পারভীন জানান, ভারতের কলকাতাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে ৫১ জনের ছাড়পত্রের নামের তালিকা পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে আজ সন্ধ্যায় দর্শনা চেকপোস্ট দিয়ে ১১ জন দেশে ফিরেছেন। ভারতফেরতদের নির্ধারিত পরিবহনযোগে চুয়াডাঙ্গা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) নেওয়া হয়েছে। সেখানে তারা ১৪ দিনের বাধ্যতামূলত কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *