1. admin@manobkollan.com : admin :
  2. mkltdnews@gmail.com : Anamul Gazi : Anamul Gazi
  3. mkltd2020@gmail.com : Mansur Talukder : Mansur Talukder
  4. sitemaker9866@gmail.com : mksabbirrahman :
  5. riff1431@gmail.com : Shariar R. Arif : Shariar R. Arif
  6. skjubayer.barguna@gmail.com : sk2021 :
  7. dxd9807@gmail.com : Sohel Mahmud : Sohel Mahmud
গর্ভাবস্থায় রোজার মাসে করণীয় - মানব কল্যাণ - Manobkollan
বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০২:৫৯ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
আসসালামু আলাইকুম  মানবকল্যাণ এর সাথে যুক্ত হওয়ার জন্য  আপনাকে অভিনন্দন। আমরা আপনাদের সহযোগীতায় একদিন শিখরে পৌছাব "ই"। ইনশাআল্লাহ । বিজ্ঞপ্তিঃ সারাদেশব্যপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলিতেছে।   ই-মেইলঃ info@manobkollan.com ফোন নাম্বারঃ 01718863323

গর্ভাবস্থায় রোজার মাসে করণীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৯ Time View
গ্যাস্ট্রাইটিসের

গর্ভাবস্থায় রোজার মাসে করণীয়

গর্ভাবস্থা একজন মায়ের জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও প্রতীক্ষিত অধ্যায়।আমরা মনে করে থাকি এ সময় শুধু বেশি বেশি খেলেই হবে। কিন্তু কোনটা বেশি আর কোনটা কম খেতে হবে তা নিয়ে আমরা ভাবি না।আর রোজার মাসে তো বাড়তি সতর্কতা নিতে হবে।

গর্ভাবস্থায়ও রোজা রাখা যায়! গর্ভাবস্থায় একজন মা রোজা রাখতে চাইলে তাকে অবশ্যই চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তিনি রোজা রাখতে পারবেন কী না।

শারীরিক অবস্থা এবং গর্ভকালীন জটিলতাগুলোকে এ ক্ষেত্রে প্রাধান্য দিতে হবে। ইসলামী শরীয়াহর দৃষ্টিকোণ থেকেও এ ব্যাপারে অনেক ছাড় দেয়া হয়েছে এবং সহজ করা হয়েছে। এবার দেখে নেয়া যাক গর্ভবতী মা রোজার মাসে কীভাবে খাবারগুলো সাজিয়ে নিবেন। • প্রথম কথা হল প্রচুর পানি, তরল খাবার, ডাবের পানি বা স্যালাইন খেতে হবে।

কোনভাবেই পানিশূণ্যতা হতে দেয়া যাবে না।

• সাহরি ও রাতের খাবারে অবশ্যই শাক-সবজি, মাছ, মাছের তেল, মুরগির মাংস, পরিমিত পরিমাণে গরুর মাংস রাখতে হবে। গরুর মাংস শরীরের আয়রন, জিংকের চাহিদা পূরণ করে।

• ইফতারিতে রঙিন ও ভিটামিন সি,এ যুক্ত ফলমূল, ডিম, ডিমের স্যুপ, চিকেন স্যুপ, খিচুড়ি বা ছোলা রাখতে হবে।

• সাহরিতে দই বা দুধ রাখতে হবে।

• সাহরি বা ইফতারে যে কোন সময়েই বাদাম, কিসমিস, খেজুর রাখা যেতে পারে।

• চা-কফি, চিনি-চিনিজাতীয় খাবার পরিহার করতে হবে।

•ডুবো তেলের ভাজা-পোড়া খাবার পরিহার করা ভাল।

•হাতের কাছে শুকনো বিস্কিট বা মুড়ি রাখা যেতে পারে যাতে বমি হলে এগুলো খাওয়া যায়। #যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবেঃ

• শরীরে ক্যালসিয়াম, আয়রন, জিংক, ভিটামিন, খনিজ পদার্থের অভাব হতে দেয়া যাবে না।

• Gestational Diabetes গর্ভাবস্থায় হয়ে থাকে। রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা ঠিক আছে কিনা জানার জন্য নিয়মিত ডায়াবেটিস পরীক্ষা করতে হবে।

• সকালে অল্প সময় সূর্যের আলোতে হাঁটার অভ্যাস করা যাতে সূর্যের আলো সরাসরি শরীরে লাগে। •

পর্যাপ্ত ঘুম ও বিশ্রাম নিশ্চিত করতে হবে।

• পায়খানা কষা হতে দেয়া যাবে না ও প্রস্রাব চেপে রাখা যাবে না।

• প্রতিদিনের নিয়মিত ওষুধগুলো সাহরি ও ইফতারের সময় খেতে হবে।

• খাবার ও সময়ের সাথে সমানুপাতিকভাবে ওজন যেন বাড়ে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।শুধু ওজন বাড়লেই হবে না সেটা যেন সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়।

√√ একটু সতর্ক হলেই রোজা রেখেও একজন গর্ভবতী মা তার নিজের ও শিশুর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে পারেন।

ডা. মো. রাশীদ মুজাহিদ এম.বি.বি.এস(ঢাবি)

প্রজেক্ট রিসার্চ ফিজিশিয়ান (আই.সি.ডি.ডি.আর.বি/কলেরা হাসপাতাল)

সোসাল মিডিয়ায় সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

বিভাগ

© All rights reserved © 2018-2021
Development Nillhost