দেশের ইতিহাসে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু

করোনা

দেশের ইতিহাসে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু

মহামারি করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৩ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৯ হাজার ৮শ ২২ জনে। এর আগে গতকাল রোববার (১১ এপ্রিল) দেশে একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ ৭৮ জনের মৃত্যু হয়।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ হাজার ২০১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৯১ হাজার ৯৫৭ জন। এর আগে গত ৭ এপ্রিল দেশে একদিনে সর্বোচ্চ ৭ হাজার ৬২৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

করোনাভাইরাস নিয়ে সোমবার (১২ এপ্রিল) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
এর আগে গতকাল রোববার (১১ এপ্রিল) আরও ৫ হাজার ৮১৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

এছাড়া মারা যান আরও ৭৮ জন।
এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, সোমবার (১২ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭ হাজার ৯৯১ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৩১ হাজার ৪০৮ জন।

এ নিয়ে বিশ্বে মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৯ লাখ ৪৯ হাজার ২৭৯ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ কোটি ৬৬ লাখ ৩০ হাজার ৩৫২ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ কোটি ৯৮ লাখ ৬০ হাজার ৬২০ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ১৯ লাখ ১৮ হাজার ৫৯১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৭৫ হাজার ৮২৯ জনের।

আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ৩৫ লাখ ২৫ হাজার ৩৭৯ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ৬৯ হাজার ৯১৪ জন।

আক্রান্ত এবং মৃত্যুতে  তৃতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিল এখন পর্যন্ত করোনায় এক কোটি ৩৪ লাখ ৮২ হাজার ৫৪৩ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৫৩ হাজার ২৯৩ জনের।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ লাখ ৫৮ হাজার ৬৮০ জন।

ভাইরাসটিতে মারা গেছেন ৯৮ হাজার ৭৫০ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে রাশিয়া রয়েছে পঞ্চম স্থানে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৪৬ লাখ ৪১ হাজার ৩৯০ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ২ হাজার ৯৮৬ জন।

এদিকে আক্রান্তের তালিকায় যুক্তরাজ্য ষষ্ঠ, তুরস্ক সপ্তম, ইতালি অষ্টম, স্পেন নবম এবং জার্মানি দশম স্থানে রয়েছে। এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *