একুশের প্রথম প্রহরে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছেন বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ মাগুরা জেলা শাখা

বিনম্র

একুশের প্রথম প্রহরে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছেন বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ মাগুরা জেলা শাখা

মাগুরা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী সরকারি কলেজ প্রাঙ্গনে রাত বারটা এক মিনিটে মাগুরা জেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা আন্দোলন ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ মাগুরা জেলা শাখার পক্ষ থেকে শহীদ বেদীতে শ্রদ্ধাজ্ঞলি অর্পন করেন বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ মাগুরা জেলা শাখা এসময় উপস্থিত ছিলেন মাগুরা বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সভাপতি শেখ আরিফুল ইসলাম স্বাক্ষর সহ-সভাপতি তপু রায়হান দপ্তর সম্পাদক ফারাহ আইদিদ শিখর বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ পৌরসভা শাখার সভাপতি শেখ মেহেদী হাসান সাংগঠনিক সম্পাদক নাবিল আহমেদ হিরন সহ জেলা উপজেলা পৌর শাখার বিভিন্ন ইউনিয়ন এর বর্তমান ও সাবেক নেতাকর্মীবৃন্দ থেকে এ কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারী আমি কি ভুলিতে পারি’ গানের সুর বাজতে থাকে। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থেকে ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ভাষা আন্দোলন দমন করতে ১৯৫২ সালের আজকের এই দিনে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সরকার ঢাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে। ছাত্ররা ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে মিছিল করেন। সেই মিছিলে গুলি চলে। গুলিতে শহীদ হন সালাম, রফিক, বরকত, জব্বার। তাঁদের স্মরণেই দেশবাসী এই শহীদ মিনারের সামনে এসে বিনম্র শ্রদ্ধা জানায়। শ্রদ্ধা-ভালোবাসার ফুলে ছেয়ে যায় মিনারের বেদি। মহান একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালি জাতীয় জীবনে একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা।

ভাষার দাবিতে পৃথিবীর একমাত্র বাঙালি জাতি প্রাণ দিয়েছেন। অতীত থেকেই আমরা শোষণ এবং বঞ্চনার শিকার। পরবর্তীতে যখন পাকিস্তানি সরকার আমাদের ভাষার উপর আঘাত হানল তখন আমাদের দেশের ছাত্র সমাজ এবং অন্যান্য সকল পর্যায়ের মানুষ সেই দাবি মেনে নেয়নি। কেননা মাতৃভাষার প্রতি কথা বলার দাবি যদি কেড়ে নেওয়া হয় তাহলে কোন জাতি কখনো তা মেনে নিতে পারে না। সেই লক্ষ্যে মাতৃভাষাকে উজ্জীবিত করার জন্য ১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালি দামাল ছেলেরা নিজেদের প্রাণ বিসর্জন করে

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *