সম্পাদকীয় ঈদুল ফিতর শুভেচ্ছা বাণী – মানব কল্যাণ

প্রিয় পাঠক ও স্রতাদয়, আসসালামু আলাইকুম,আমি যানি পৃথিবীর এই ক্রান্তিকাল মুহুর্তে আমাদের কারো হৃয়ে প্রশান্তির ছোয়া এই ক্ষনে এখন আর নেই, তার পরেও মহান রবের নিয়মে এই বসুদ্ধারার প্রক্রিতি গত ধারায় ধাবিত হয়ে প্রতি বছরের ন্যায় আজও আমাদের অতি নিকটে মুসলমান ধর্ম অবলম্বীদের সবথেকে শিখিরিত উৎসব ময় দিন, ”ঈদুল ফিতর” যে দিনটির প্রতিটা ক্ষন মুসুলমানরা উদজাপন করে আনন্দে মুখরিত হয়ে। সকালটা শুরু হয় যার যার বাসায় অজু গোসল সেরে মিষ্টি পানির গেলাসের ডগায় চুমুকদিয়ে, পাশের আমেজ ময় ঈদগায়ে দু’রাকাত নামায আদায়ের প্রাণ ভরা উৎসাহে, নামাজ শেষে প্রথমেই হাতে হাত মিলিয়ে মিলিয়ে নেই বুকের সাথে বুক।
এরপরে শুরু হয় এক বাড়ির আঙিনা থেকে আরেক বাড়ির আঙিনায়,এভাবেই চলে সম্পর্ক বাড়ানোর আমেজ।
হঠাত অকল্পিত অভাবনিয় এক সংক্রামন, যা হার মানিয়েছে গোটা বিশ্বের সমস্ত বিঙ্গ্যান,বিঙ্গানি এবং সমস্ত উন্নত সব প্রযুক্তিট আবিস্কার। এসব তেমন কিছুই রচিত করতে পারেনি, শুধ সামান্য কিছু নির্দেশনা ছারা।
সেগুলো এখন আমাদের সবার অন্তরে স্থাবিত। তাই এগুলো মেনে, মহান প্রভুকে ডাকা ছারা আমাদের আর কিছুই কারার নেই। তাই আমি মনে করি এ পৃথীবী বর্তমানে খুবই সংকটময়ে অবস্থিত। আর এই ক্রান্তি কালেও আমার মনে হয়,কিছুটা হলেও ভালোদিকও রয়েছে, ঘনিষ্ঠ হয়েছে পারিবারিক জিবন, যারা কর্ম জীবী বা পরিবারের আয়ের উৎস কারী কারো জিবদ্দসায় এতদিন এক ছাদের নিচে থাকা হয়েছে বলে আমার মনে হয় না। আমার হয়নি। এমনকি আনন্দন মুখরিত ঈদের পুরো দিনটাও কাটানো হয়না। তাই এই ক্রান্তিময় সময়ে অগনিত খারাপ আর দূর চিন্তাকে অতিবাহিত করে ঘড়ময় জীবনকে হৃদয় গভীর থেকে অভিনন্দন যানিয়ে উপভোগ করছি এবং সর্বস্থরের স্বম্নানিত পাঠকদয়েকেও বিনিত আহব্যান গ্যাপন করছি এবারেট ঈদ আনন্দ হোক পারিবারিক। পরিবারে থেকে, পরিবারের প্রতিটা প্রণকে ঈদ আনন্দে আনন্দিত করে মুখরিত থাকবেন, মুখরিত রাখবেন প্রতিটি ক্ষন।
আমরা কেহ করিবনা সেভন ঔষাধ,
বারাবো ক্ষমতা রোগ প্রতিরোধ ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়েও
বলতে হয়
”ঈদ মোবারক”

মানসুর তালুকদার

সম্পাদক

মানব কল্যাণ

Author: Mansur Talukder

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *